ডাকাতি বারো লাকাটি

১.
গাঙগরে ডাকাতির উপদ্রব বাড়ে যারগা। গেলগা কালি ভানুগাছর নগরে ডাকাতি হমেয়া গর আগত্ত তিন ভরি হুনা বারো নগদ রূপাপয়সা যেতা পাসি হাবি নিয়া গেলাগা। মাহা দুহান আহান আগে মাধবপুরে ডাঙর ডাকাতির ঘটনা কতহান অয়া গেলগা। প্রশাসন বারো আইনশৃংখলা বাহিনীর কোন উদ্যোগ এবাকাউ নাদেখলাং। এবাকা রাতি ডাকাতি অর, ভবিষ্যতে বিয়ান বেলিটিকে অইতয়। হুদ্দা ডাকাতি নাগই। আরতাউ হবানেই ঘটনা আমারকা বাসেয়া আসে।

২.
বাংলাদেশর জাতীয় ইলেকশনে সাম্প্রদায়িক বিএনপি-জামাতে ইসলামি জোট জিঙেবেল্লে সংখ্যালঘু, বিশেষ করিয়া হুরুকাং জনগোষ্ঠি ঔতার ভাগ্য আঁধারে বুরদিতই। পার্বত্য চট্টগ্রাম, নওগা, সুসংদুর্গাপুরে যেতা আসি ঔতাতে ভিটাবাড়ি বেলিয়া দাবদানি লাগতই। আমারতাতে যানার পথহানৌ নেই। ভানুগাছ বুলতারা লয়া এহান আমার মানুয়ে রাজত্ব করিয়া থসিলাহান। আমার আপাবপার শৌর্যবীর্যর কারণে বাঙালি হিন্দু বাঙালি মসরমান হাবিয়ে আমারে ডরপেইলা। গেলগা ৫০ বছরে কুরাং কুরাংতো মসরমান এতা আয়া আমার লয়া এতাত লাম পাতিয়া আমারেই সংখ্যালঘু হঙকরেদিলা। এবাকাতে কাঙ আসুলানির সমেইত পেয়া মসজিদ আগো পেইলে ইম্পানি অয়া যানা লাগের।

৩.
আমার আপাবপায় হঙকরেসিলা সাগেই-লকেই-শিংলুপ ভিত্তিক সমাজব্যবস্থা এহাত নিয়াম সোস্যাল সিকিউরিটির ব্যবস্থা থসিলা। আমার ভিটাবাড়ীত বারার মানুয়ে বরানির চল নেয়সিল। এমনকি বারার মানুয়ে খানার খুপাং খেরি ঔতা পেয়া বারে থইলা। এতা হাবি করেসিলাতা সামাজিক নিরাপত্তারকা। এবাকা আধুনিক শিক্ষা বারো চিন্তাধারা হমানির পরে আপাবপার রীতিনীতি আমি নাউ মানিয়ার। করিম রহিম পরিতোষ ফারুক হাবিরে গরে বরিয়ার। ফলাফলহানতে ইমে মুঙহাত দেহরাং। কার গরে কুন জাগাত কিতা আসে ঔতা হাবি এবাকা বারার মানুর নখদর্পনে। কালি ডাকাতি অসে গর উগত ব্যাংকেত্ত রূপা তুলিয়া আনেসি বারো আনিয়া কুরাং থসি জাগা অহানৌ ডাকাতিয়ে হারপাসি। হানতে বিষয় এহানলো খারকরানি থক।

৪.
আমিতে যোদ্ধা জাতিহান। থাইনাকার কালেত্ত মনিপুরর মাটিত কৌমগোষ্ঠি উতা নানান যুদ্ধ-সংগ্রামর বিতরে টিকিয়া আসিতা। থাংটা, কাংজেই, লাকাটি, লাঠিকেল খেলা উহানতে আমার একদম মিহুলগর লগে তিলয়া আসেতা। মাইর কিতা অইলে বারার মানুয়ে মনিপুরি লাঠিয়াল হায়ার করলা। আমার বপায় গরে কার-ধনুক থসিল। এবাকা উতা চিন্তাই করানি নাকরের। হাবি পাহুরে বেল্লাং। এবাকা আমার সমাজে গিরীন্দ্রর সাদে কোন বীর না নিকুলতারা। এসাদে আমার নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাগিয়া পড়িল বারো বারার মানুয়ৌ আমারে থৌ না-সাকরানি অকরলা। আমার দেবোত্তর সম্পত্তি শ্বশানঘাট হাবি বেদখল অয়া আহের। আকদিন আমার ভিটাবাড়ির বারাদেউ মিল্লেং দিতায় শৈনেই। আমার নিঙল ঔতা আসিতা হাবিত্ত বিপদে। কত নিঙল মিয়াঙর আতে হেনস্তা অইতারা হিসাব নেই, সমাজর লাসডরে না ফুকেইতারা।

৫.
কিহান সমাধানহান অউহার জওয়াপতে মোরাং নেই। ক্ষুদ্র বুদ্ধি এহানলো হারপাউরি গাঙে-গাঙে গরে-গরে নিরাপত্তা বলয় হঙকরানি নারলে উপায় নেই। আমার শৌ সুমারা গাওরাপা পুরিজেলেই হাবিয়ে আত্মরক্ষার ট্রেনিং দেনা। গাঙে গাঙে যুবকলো একশন-টিম হঙকরানি। আমারতা যেতা প্রশাসন বারো রাষ্ট্রর ডাঙর পদফামে আসি ঔতারে কামে লাগানি। সার্ভাইভ করে পারানি উহান হাবির আগে। জিংতা অয়া থানা পারলে হারা জীবনহান সমাজসেবা, উন্নয়ন, উন্নতি, হজাক অনা, দলাদল, মহামেল হাবিতা করে পারতাঙাই।

ঢাকা   ০২.০৮.২০১৩

কালা ধলা: সৌন্দর্যর ভ্রান্ত মনস্তত্ব

১.
কৃষ্ণ কালা অইলেউ তা ধলা নিঙল বিসারার। হাবিয়ে ধলা নিঙল বিসারতারা। ধলা অনি মনেইতারা। কালা নিঙলশৌ উগো বেলা আহান ভাত নাখেয়া অইলেউ বাজারেত্ত ফেয়ার এন্ড লাভলি লয়া, উতা গষিয়া মেইথঙহান ধলা করানি মনেইরি। ধলা অনা উহানেই চুনা অনিহান- এরে ভ্রান্ত মনস্তত্ব এহান বরাদেসিতা আর্যই। আর্যর দেবদেবী প্রায় হাবি গৌরবর্ণ। কালা অইলাতা অসুর। ভারতবর্ষর মুল জনগোষ্ঠি দ্রাবিড় তানুরে অসুর মাতলা। হানতে কালা হবানেই, ধলা হবা। থাইনাকার কালেত্ত মুরগৎ বরাদেসি লাল ধারনা এহান সিতারার বুজনরাংতো শৌরাং।

২.
নিঙলশৌ আ’গ কালা অইলে উগলো মালক বাপক চিন্তাত পড়তারা। কিসাদে বিয়া দিতৌ মোর জিলকরে। তানুরে পাঙলাক করানিরকা পশ্চিমা কর্পোরেট গোষ্ঠি দাতসরি মেলিয়া মুঙে আইলা। সমাধান বাগেইতারা। রং ধলা করানির ক্রীম। হাপ্তা আহান গষলেই মেইথঙহান ঝকঝক উনি। হায়তায় নাগৈতায় আশ্বাস দিয়া মানুর দুর্বলতা উহানতে পুজি করিয়া ব্যবসা করানি এহান কর্পোরেট ধর্মহান। ব্যবসা এহান লেইরাপা দেশ উতাত হাবিত্ত নুঙেই। তুমি মাল লইতে থায়, আমি এগতে পয়সা গনিক। তানুর লগে আসি মিডিয়া, পত্রিকা, টিভি, রেডিও। নাগই য়ারি দিয়া প্রোডাক্ট এহার পাবলিসিটি করুয়ানি। উপেই দেহুয়েইতারা ক্রীম গষিয়া বিল গেটসর সাদে দামান পেইতারা, ক্রীম গষিয়া চাকরি পেইতারা, ক্রীম গষিয়া পরীক্ষাৎ পাশ করতারা। মানুরে বেকুব হঙকরতে মিডিয়ার জুড়ি নেই।

৩.
মানুর কালা ধলা অনি উহান জন্মগতহান। ভৌগলিক বারো নৃতাত্ত্বিক কারণে ভারতীয় উপমহাদেশর শতকরা পচানব্বই ভাগ মানুর গারিগর স্বাভাবিক রঙহান কালা। ইমে দুগো আগো ধলা অইতারা। চামড়াহার পয়লার এপিডার্মিস স্তরে মেলানিন বপিলেউ রংহান কালা অর। ক্রীম গষিয়া মেলানিন কমানি সম্ভব নেই। সাময়িকভাবে হাইড্রোকুইনোন, স্টেরয়েড, মার্কারি, নায়াসিনামাইড এসাদে ক্যামিকেল কতহান মেলানিন কমানি পারের কিন্তু অউতা চামহানরকা নিয়ামপারা ক্ষতিকর। মেলানিন উৎপাদন এহান দেহাগর স্বাভাবিক প্রক্রিয়াহান; না মরেসে মাহি উৎপাদন অইতে থার। কারণহান মেলানিনে আমার চামহান সুরক্ষা করিয়া থর। রং ফর্সার ক্রীম ঔতায় কৃত্রিম পিগমেন্টেশন আহান দেহুয়েয়া চামহানর দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি করের এহান বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত অসে।

৪.
নারীচরিত্র এহানরে সাম্রাজ্যবাদর ইউরোপীয় সংজ্ঞালো চানা এহান দাস মনোবৃত্তি হান। আমি তানুর চাকর অনা মনেয়ার। তানু যেসাদে অসি অউসাদে অনা মনেয়ার। নাইলে টিভি সিনেমা পত্রিকা য়ারিৎ যে ভ্রান্ত মিথ আহার হঙসে উহান কিয়া বাগানি নারিয়ারতা? ধলার জয়গান মানে কালা উগরে তলকরানিহান। মৌলিক মানবাধিকরর লংঘন। বর্ণবাদরকা যদি শাস্তি থার, উতা অইলে রং কালা-ধলা বিসারিয়া ব্যবসা করতারা উতারতা কিয়া শাস্তি নাইতয়তা? মোর দাঙ্গ কালা, মোর মালক কালা, দ্রৌপদি কালা, শমিষ্ঠা কালা, ভ্রমর কালা, কৃষ্ণ কালা – কালা উহানেই আমার চিরন্তন চুনাহান।

Dark is Beautiful! Stay Beautiful!!

ঢাকা   ১৯.০১.২০১৪

‘ছ’বর্ণ, ‘স’বর্ণ বারো তালসপার য়ারি

আমার ঠারে বানানলো বিতর্ক এহান নংসাং দিনরহান। বানানলো কৌলি এতা বাংলা অসমীয়া হাবি ঠারেউ আসে। বাংলা বানানলো নানান মতভেদ আসে, ঔতালো বিতর্ক এবাকাউ চলের। বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী ভাষাত ক্রিয়ারমা বারো শব্দরমা বানান সম্পর্কে দুহান মতভেদ দেহিয়ার। মতভেদ দ্বিয়হানিলো গ্রুপ দুহান খেয়সি। দাপা আহান অইলাতা ‘দন্ত্য-স পন্থী’ আরাক দাপা আহান ‘ছ পন্থী’।

‘স’ পন্থী
‘স’ পন্থী গিরিগিথানীয়ে ক্রিয়াপদ বারো ক্রিয়া বিভক্তিৎ দন্ত্য-‘স’ গো বেবার করানির পক্ষে। যেমন অসে, অসিল, আসু, খাসু এসাদে। বারা এগদে আসিতা স্বর্গীয় শ্রীজগৎমোহন সিংহ, অধ্যাপক শ্রীবীরেন্দ্র সিংহ, অধ্যাপক শ্রীবরুনকুমার সিংহরেলো চিংকরিয়া নিখিল বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী সাহিত্য পরিষদ। তানুর যুক্তিহানি অইলতা – আমার ঠারে সংস্কৃতর ‘অস্’, ‘আস্’ বারো ‘ভূ’ ধাতু তিনহানির প্রভাব এতা অপরিহার্য। ‘শ’ ‘ষ’ ‘স’ ধ্বনি এতা শৌরসেনী প্রাকৃতর সাদে আমার ঠারেউ ‘হ ধ্বনিত পরিণত অর ঔহানে আমার ঠার এহান শৌরসেনী প্রাকৃতত্ত হঙসেহান। শৌরসেনী নাঙ এহান আহেসেতা মহাভারতে বর্ণিত মথুরার কাদার শূরসেন দেশর নাঙেত্ত। হানতে শৌরসেনী প্রাকৃতত্ত অপভ্রংশ অয়া জরম অসে পশ্চিমাহিন্দি বারো হিন্দুস্তানি ইত্যাদি ঠার এতা অইলতা বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরীর ভগিনী-ভাষা।

‘ছ’ পন্থী
‘ছ’ পন্থী গিরিগিথানীয়ে ক্রিয়াপদ বারো ক্রিয়া বিভক্তিৎ ‘ছ’ গো বেবার করানির পক্ষে। যেমন অছে, অছিল, আছু, খাছু এসাদে। স্বর্গীয় শ্রীকালীপ্রসাদ সিংহ পিএইচডি ডি লিট্ গিরকরে চিংকরিয়া বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী সাহিত্য সভার গিরিগিথানী বারা এগতে আসি। তানুর যুক্তি মুলত দুহান – ‘আছ্’ ধাতু বারো ছে, ছু, ছি ইত্যাদি ক্রিয়বিভক্তি এতা আহেসেতা প্রাকৃত ‘অচ্ছ’ ধাতুত্ত। সংস্কৃতর ‘ছ’ ধ্বনি এগো বিষ্ণুপ্রিয়াত ‘স’ হিসাবে উচ্চারন অর; হানতে যেপেই ‘স’ ধ্বনি থার ঔপেই ‘ছ’গো ইকরানি। আরাক আহান অইলতা- মাগধীত্ত অপভ্রংশত্ত অয়া সৃস্টি অসে অসমীয়া, বাংলা, উড়িয়া, চাকমা ঠার এতা বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরীর তুলো আশি/নব্বই ভাগ মিল। মাগধী অইলতা প্রাচীন ভারতর মগধ অঞ্চলর ঠারহান। হানতে বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী ঠার এহানউ মাগধী প্রাকৃত ঠারেত্ত সৃস্টি অসেহান।

নিয়ামদিন ধরিয়া নানান রথী-মহারথীর বিতরে তর্ক -বিতর্ক অয়া গেলেগাউ মীমাংসার লেপ্পা ফাম আহানাত গিয়া উবা অনা নারেসি। তালসপা আহানলো বেইবুলি আহানে বিচার কিতা বয়া লয়তেগা দ্বিয়পক্ষউ ‘বিচার মানি কিন্তু তালগাছ আমার’ উনিয়া দাবি করলাহানতে আর মীমাংসা নাইল। আমার বানানর কৌলি অহানউ এসাদে অসে। যুক্তিতর্ক বিচার আলোচনা হাবিতা করিয়া লইতেগা হাবিয়ে যারযির সিদ্ধান্তৎ অটল থানিয়ে বানানলো কৌলি এহান লমনির দিশা নাপার। তবে আমি আশা থয়ার আলোচনার মাধ্যমে আকদিন বানান সমস্যা এহার সমাধান অইতয়।

ভাষাতাত্ত্বিক পরিচয় নৃতাত্তিক পরিচয়

১.
“মণিপুরি” বারো “বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি” ওয়াহি দ্বিয়হানিলো খালকরিন য়ারি আছে। সাধারন অর্থে মণিপুরি এহান জনিক পরিচয় আহান বুঝার, নির্দিষ্ট কোন ভাষাগোষ্ঠি আহানরে না বুঝার। অভিধান ইলয়া মাতলে মণিপুরি মানে মণিপুরর মানু বা মণিপুরে জাত বা সৃষ্ট বস্তু আহানরে মণিপুরি মাতে পারিয়ার। অন্যবেদে মৈতৈ, বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি এতা ভাষিক পরিচয়। যে জনোগাষ্ঠির মানু মৈতৈলোন বা মৈতৈ ঠার টটরতারা তানুর মৈতে বুলিয়ার। বারো যেতাই বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি বা ইমারঠার টটরতারা তানু বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি। স্যার গ্রীয়ার্সন গিরকে লিংগুইস্টিক সার্ভি অব ইন্ডিয়াত আমারে ভাষাগোষ্ঠি আহান বুলিয়া মাতেসে। বিসি এলেন, ই টি ডালটন, কর্ণেল মেককুলাক, ক্যাপ্টেন ডব্লিউ ডান প্রমুখ গিরকগাসিয়ে ‘ময়াং’ (Mayang) বুলিয়া মাতেসি অহানৌ ঠার আহার নাংহান। হানতে বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি এহান ভাষাতাত্ত্বিক পরিচয়হান, নৃতাত্ত্বিক বা এথনিক পরিচয়হান নাগই।

২.
মণিপুরর যে যে কৌমগোষ্ঠির মানু আমার ঠারহার বিবর্তন প্রক্রিয়াত ইনভল্ভড অসিলা, ঠারহান গ্রহন করেসিলা বারো ধরিয়া থসিলা তানুই আমার পুর্বপুরুষ। যেতাই অন্য ঠার গ্রহন করেসি তানু অন্য ঠারর মানু, আমারতা নাগই। তানু জনজাতি হিসাবে মনিপুরি অইতে পারে, কিন্তু বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি নাগই। এরে সূত্র এগোলো আগুয়েইলে মণিপুরর বিষ্ণুপুর, নিংথৌখঙ বা জিরিবামে যেতাই আমার ঠার বেলিয়া মৈতৈ গ্রহন করেসি তানুরেউ এবাকা বিষ্ণুপ্রিয়া মাতানি নারিয়ার। সাধারন ভাষা-পরিসংখ্যান সূত্রলো তানুরে ইমে মণিপুরি, নাইলে মৈতে বুলে পারিয়ার, কোনভাবেই বিষ্ণুপ্রিয়া নাগই। ভাষাতাত্ত্বিক আইডেন্টিটি বারো জনিক আইডেন্টিটি দ্বিয়হানি একদুম তঙাল বিষয়।

৩.
হানতে সোজা হিসাবে যেতাই বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি ঠার দিতারা তানুই বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি বা আমার মানু। যেতাই আমার ঠার নাদতারা, বা পুরাপুরি পাহুরেসি অথবা অন্য ঠার গ্রহন করেসি উতারে আমি ‘আমার মানু’ বুলে নারিয়ার। মানু আগই যে ঠারহান দের ঔহানই তার পরিচয়হান। ভারত বাংলাদেশেত্ত চিংকরিয়া পৃথিবীর হাবি দেশেই জাতউতা এসাদে ভাষার ভিত্তিলো খেইকরতারা। হানতে বার্মা, মণিপুর বা বিশ্বর কোন কোনচেলেদে ‘আমার মানু’ বিসারানির আগে বিষয় এহানি পরিস্কার করেবেলানি থক। মতামত থদেনারকা হাবিরাং হেইচা কাৎকরিয়ার।

ঢাকা   | ২০.০১.২০১৩

আমার ‘ডাক’ উগো মৃদঙ্গ নাগই

আজিকালি আমার ‘ডাক’ উগরে মৃদঙ্গ বুলিয়া মাতানির টেন্ডেন্সি আহান দেহিয়ার। হুত্তুমে আমার ডাক উগো মৃদঙ্গ নাগই। মৃদঙ্গ ওয়াহি এগো আহেসেতা সংস্কৃত ‘মৃৎ’ বারো ‘আঙ্গ’ ওয়াহি দ্বগিত্ত। মৃৎ মানে মাটি (clay) বারো আঙ্গ অইলতা শরীর বা দেহাগো(body)। হানতে যে বাদ্যযন্ত্রগোর দেহাগো মাটিলো হঙকরা উগোর নাঙহান মৃদঙ্গ ( ফটোগো চেইক)। আমর ডাক বারো পুঙ এগোতে তঙাল বাদ্যযন্ত্র আগো। এগো অরিজিন ডেভেলপমেন্টর য়ারিয়ৌ তঙাল। মৃদঙ্গর উৎপত্তি দক্ষিন ভারতে। আমার ডাক উগোর উৎপত্তি মণিপুরর মাটিত। আমার ডাক এগো পুরাপুরি কাঠ/রুকলো হঙকরতারা; মুখাহানি বারো ছানিহানাত চামড়া বেবার করকারা। এগোরে মৃদঙ্গ, ঢাক বার ঢোল মাতানিয়ৌ চুম নেই। ১৫৪ খ্রীস্টাব্দৎ মহারাজ খুইয়ল তম্পক ওরফে ক্ষেমচন্দ্রর হাকতাকে আমার ডাক বা পুঙ এগোর প্রচলন অসিল বুলিয়া তথ্য পেয়ার। পুঙ মানে ড্রাম বা ডাক। পুঙেত্ত পুঙ চলোম(pung cholom)। আগে পুঙ এগো মানু ডাহানির কাজে বেবার অইল। যুদ্ধ বারো শত্রু আক্রমন অইলে ডাকগো বাজিয়া মানু ডাকলা। জন্তু জানোয়াররে ডর দেহেইতেই বেবার অইল। মণিপুরর তাঙখুল বারো কাবুই জাতির মানুরাং এবাকাউ প্রচলন এতা দেহিয়ার। পিসে পিসেদে সাংস্কৃতিক ডেভেলপমেন্টর লগে ডাকর প্রচলন উহান মাত্রা পাসিল বিশেষ করিয়া অস্টাদশ শতকে বৈষ্ণব ধর্মর প্রভাবে।

মৃদঙ্গর লগে মণিপুরি পুঙ বা ডাকগর শব্দ বারে সংগীত ব্যঞ্জনার নিয়াম পার্থক্য। ডাকর পুঙলল উগো মৃগঙ্গত্ত নিকালানি সম্ভব নেই। মৃদঙ্গর পরিবর্তিত রূপহান অইলতা খোল। মাটির বদলে কাঠলো হংকরতারা। খোল এগোর চল বাঙালি বারো অসমীয়ারাং নিয়াম। খোলগর লগেউ আমার ডাকগর নিয়াম পার্থক্য। খোলগর বাঙেদের বারা উহান বাতেদের দ্বিগুন। আমার ডাকরতা দ্বিয়বারার আয়তন প্রায় সমান। ইমে গজে দিতারা রাসায়নিক প্রলেপ উহান কমবেশ অর।

বাহ্যিক মিলউহান দেহিয়া নানান ভারতীয় বার ইউরোপিয়ান গবেষকে মণিপুরি বাদ্যযন্ত্র এগোরে ভুলভাবে মৃদঙ্গ মাতিয়া গেসিগা। আমিয়ৌ আগপিছ না খালকরিয়া এহান গ্রহন করেসি। এবাকাতে নিপাতনে সিদ্ধ মাতিয়া চারিয়বেদে ভুল অহানই চুমহান বুলিয়া চলেছে। সংস্কৃতির বাণিজ্যিকরন বা বাজার অর্থনীতির সম্পর্ক আহানৌ এপেইত পেয়ার। কিন্তু আমার একদম নিজস্ব বাদ্যযন্ত্র এগোরে মানুরগো বুলিয়া মাতানি এহানতে থক নার সাৎ। আমিতে প্রায় চারি লিশিঙর গজে অনার্য ওয়াহি আমার ঠারে বেবার করিয়ার, হানতে ‘পুঙ’ শব্দ এগো ঠারহানাত বরেইলে মহাভারতহান অশুদ্ধ অইতইথাং?

শ্রীরাধা বারো ব্ষ্ণৈবধর্ম

১.
জন্মসূত্রে বৈষ্ণবগো অইলেউ মি অমাটিক কৃষ্ণভক্তগো নাগই। মি মুলত শ্রীরাধার ভক্তগো। এহানর মুলে কৃতজ্ঞতার য়ারি আহান আসে। য়ারি অহান হাবি বৈষ্ণবে পাহুরতারা।

২.
শ্রীরাধাই চিনুয়াসেগো কৃষ্ণরে। রাধা নেইলে কৃষ্ণরে আমি নাউ চিনলাং অইস। রাধা এগ কুংগ? মহাভারত, রামায়ণ, ভাগবৎ পুরাণ কুরাঙৌ আমি রাধার নাংহান নাপেয়ার। কৃষ্ণর লগে রাধার যুগলরূপ পেয়ারতা দ্বাদশ শতকর বৈষ্ণব কবি জয়দেব গিরকর গীতগোবিন্দৎ বারো চন্ডিদাসর শ্রীকৃষ্ণকীর্ত্তনে। বৈষ্ণব কবির কল্পনাৎতো জরম অসে রাধা এগোই পিসে পিসে মিথলজির কৃষ্ণরে জনপ্রিয় করিয়া গেসেগো ভক্তি বারো প্রেমর টানলো। রাধার লগে কৃষ্ণর প্রনয়কাহিনী উহান সাহিত্যত কতিহান চর্চিত অসে হিসাব নিকাশ নেই। এসাদে শ্রীরাধা এগো একাধারে কুলবধু, প্রেমিকা, কৃষ্ণভক্ত, নিঙলর আদি চিরন্তন রূপহান অয়া মানুর থতাৎতো থতাৎ বিবর্তিত অসে। শ্রীচৈতন্যদেবে মাতের, মোর অন্তরে রাধা, বহিরাঙ্গে কৃষ্ণ। নিয়াম লু কথাহান। ‘মোর অন্তরে রাধা’ – মানে, মোর অন্তরে নিঙলর অনুভূতি। নিঙলর অনুভূতি অহানই শিল্পর ভিত্তিহান। বাংলা এলা-নাছার ভিত্তিহান চৈতন্যদেবে হঙকরেদিয়া গেসেগা।

৩.
বৈষ্ণবদর্শনে রাধারে জীবাত্মাগর প্রতীকগো বুলিয়া নিঙকরানি অর। কৃষ্ণ বারো পরমাত্মাগো। পরমাত্মার লগে তিলনারকা জীবাত্মাগোর আকুলতা অহানই শ্রীরাধার প্রণয়যন্ত্রনাহান অয়া নিকুলেসে। অহানে রাস রাখুয়ালে আমি হাবি যিয়ারগাতা রাধা অলয়া। রাধার সাদে এলা দিয়ার, রাধার সাদে বিবুলা অয়ার, কাদিয়ার।

*পেইন্টিং এগো শ্রীশক্তিকুমার সিংহ গিরকে ‘পৌরি পত্রিকা’র মলাটহার কা করেসিলগো

ঢাকা   ১৪.০৯.২০১৩

দলাদলি

১.
দলাদলির দরকার আছে। আমার মালঠেপ কেন্দ্রিক সামাজিক সিস্টেম এহান টিকেয়া থইতে দলাদলির বিকল্প ব্যবস্থা নেই। দলাদল নেইলে কুনগৌ মালঠেপে নাও যিতাইগা। হাবি গরে বয়া নিজর নিজর কার্ম করতাই। জিতাজিতি বারো পদফাম দখল করানির প্রতিযোগিতা নেয়ইলে ঐতিহ্যিক বারো সাংস্কৃতিক চর্চা ঔতাউ মাঙয়া যিতইগা। হানতে দলাদল চলক। আগো গজেদে কাইলে উগরে যেনতেন প্রকারে তলেদে লামাদেনির হৎনা করানি এহানতে আমার জাতীয় চরিত্রহান। এহান গোষ্ঠি বা পরিবারর বিতরেত্তউ অইতে পারে, এহানরকা দলাদলরে দায়ি করানি থকনেই।

২.
গাঙগরে আমার দলাদল করতারা বুজন গিরীগিথানীরতা মেইনস্ট্রীম পলিটিক্সর লগে কুনো যোগাযোগ নেই। হানতে রাষ্ট্রর শোষন-বঞ্চনা, রাষ্ট্র আহার বিতরে থায়াউ নিজর সামাজিক রাজনৈতিক চেতনা, গোষ্ঠিগত অধিকারর য়ারি ঔতা তানুর কানে নাউ থুঙর। নিজর গাঙ উহানরেই তানু রাষ্ট্রহান নিংকরতারা। নিতান্ত বুরবক মানু কতগোই নিজর কামদুম বেলেয়া তানুর নিজর অজান্তে কৌমগোষ্ঠি আহার সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রক্রিয়ার চাকাউগো সচল করিয়া থনার দ্বায়িত্ব নেসিগা এহান পজিটিভলি নেনাই হবা। তানুর কতিহান ক্ষমতা ঔহানতে ইমে হারপেয়ারনাই। মুক্তবাজার অর্থনীতির যুগে মালঠেপেত্ত বা শিংলুপেত্ত বাদ অনা অহান ব্যক্তিবিশেষরকা এমাটিক ডাঙর ক্ষতিকারকহান নাগই। আরাকবেদে চেইলে প্রতিষ্ঠান ঔতাই মানুর শত্রু, মুক্তির পথর বাঁধা।

৩.
বরং হেরেদে জাতহানরে বারার মানুরাং বেসিয়া নিজর স্বার্থসিদ্ধি করাত থেঙসি গিরি ঔতার বারাদে মিল্লেঙ দেনা থক। জাতহানর মুরগৎ নুন থয়া বরই খানা এহান হাবিত্ত বিপজ্জনকহান।

ঢাকা  ১৯-০৭-২০১৩

ধর্মকানা মানুর য়ারি

১.
ধর্মান্ধ বা ধর্মকানা মানু এতা সমাজ সভ্যতার বিকাশর পথে যুগে যুগে বাধা অসি। নানান সময়ে আমি এহার প্রমাণ দেহিয়ার। বাংলাদেশর বগুড়া জিলাত গেলগা কালি (০৩.০৩.২০১৩) জোনাকগর বিতরে দেলোয়ার হোসেন সাঈদী বুলিয়া মোল্লা আগর মেইথংহান দেহেসি উনিয়া উজ্জার নাজ্জার অইল। সাঈদী মোল্লা এগোরে ১৯৭১ সালে গণহত্যা ধর্ষনরকা আদালতে ফাঁসির রায় দেসিগো। তারে সমর্থন করতারা ধর্মান্ধ জামাতে ইসলামি দল এহানে। কালি দেশর নানান জাগার মসজিদেত্ত জোনাকগত সাইদী নিকুলেসে উনিয়া ঘোষনা দিয়া ধর্মান্ধ মসরমানউতারে উত্তেজিত করলা। উত্তেজিত মানু ঔতা সড়কে লামিয়া ভাঙচুর, জ্বি লাগিয়া, লুটপাট করিয়া লইতেগা পুলিশর লগে লাগিয়া লামসাম ১০গো ইমে জাগাত গুলি খেয়া মরলা। এতার আগে রায় উহার জেরলো নানান চিটাগাংসহ নানান লয়াত হিন্দুর মন্দির গরবাড়ি জ্বালাদিয়া উচ্ছেদ করলা। এবাকা পেয়া পুরা দেশে আহৌর গজে মানু মরলা, পুলিশ মরলা আট নয়গো।

২.
ইতিহাসর বারাদে চেইলেউ ধর্মান্ধতার নিকৃষ্ট উদাহরন আবকসা দেহিয়ার। বর্ণাশ্রম হিন্দুধর্মর নিপীড়নে অতীষ্ঠ অয়া ভারতবর্ষর অন্ত্যজ মানুঔতা যেবাগা বৌদ্ধধর্ম গ্রহন করানি অকরালা উবাকা হিন্দু ঔতায় বৌদ্ধ নিধনে লামেসিলা। রাজা পুষ্যমিত্র (খৃ: পূ: ১৫০) চিংকরিয়া রাজা শশাংক ( ৬৫০ খৃষ্ঠাব্দ)র আমলেত্ত বৌদ্ধ এতা মারানি অকরলা। ৮ম শতাব্দীত শংকরাচার্যর আমলে টানা ১০ বছর বৌদ্ধ এতারে তুপকরে তুপকরে আলেইলা। শংকরাচার্যই মাতেসিল, বৌদ্ধ আগো মারানি নারলে তি কিতার হিন্দুগো? হানতে এসাদে প্রায় এক কোটি বৌদ্ধ নিশ্চিন্হ অইলা। যেতা জিংতা অয়া থাইলা তানু কতগো এশিয়ার মুঙবারাদে পলিয়া নিজরে কালকরিয়া থইলা। কতগো বৃহত্তর হিন্দুফোল্ডে আত্তীকরন অইল। বাকীউতা দলিতা অয়া কোনাকোনসেলেদে ছিতারিয়া থাইলা। বৌদ্ধ তুমনির বাদে বঙ্গর সাহিত্য, সংস্কৃতি বারো জ্ঞানচর্চার ক্ষেত্রত শুণ্যতা দেহাদেসিল। এসাদে শুণ্যতার বিতরে আরবেত্ত মসরমান আয়া হমাসিলাগা। তানু দলিত অন্ত্যজ শ্রেনীর মানুরে টার্গেট করিয়া নিজর ধর্মবিস্তার করেসিলা। পিসেদে হিন্দুধর্মর মানু ঔতারে নানানভাবে উৎপীড়ন করলা। হিন্দু বারো মসরমানর বিতরে আগরে আগই ঘৃনার সংস্কৃতি উহান চুড়ান্ত রূপ পেয়া ১৯৪৭ সালে ধর্মর ভিত্তিলো দেশভাগ অইল।

৩.
হানতে ধর্মান্ধতা এহান ইমে ধর্মে ধর্মে বিরোধ হংকরেদের। ধর্মকানা মানু উতারে লারাদেনা নুঙেই। ইমে ‘নারায়ে তাকবীর’ নাইলে ‘জয় শ্রীরাম’ মাতলে লইল। ভারতর সাদে বিজ্ঞান প্রযুক্তিত উন্নত দেশ আহাত গনেশর মুর্তিগই সেলকম পিয়ের উনিয়া পরল্লেই করলা। বাংলাদেশেউ লেইসাঙর দৌয়ে সেলকম পিতারা উনিয়া গুজব নিকুলেসিল। ধর্মর এরে সেন্টিমেন্ট এহান মানুরাং হবানেই কামে প্রয়োগ করানিরকা জাং তুলিয়া আসি রাজনৈতিক অর্থনৈতিক সুবিধাবাদী শ্রেণীআহানে। মানুর বিতরে ঘৃনা বরাদিয়া উগ্রতা সৃস্টি করানি অকরের ধর্মরেলো নানান কিচ্ছাকাহিনী হংকরিয়া। এসাদে বাবরি মসজিদলো রক্তারক্তি অইল, গুজরাটে মানু আকতায় আকতার লগে সেদাসেদি দিলা।

৪.
ধর্মপালন করিক, ধর্মর দর্শন বারো মানবিক শিক্ষার য়ারিউতা গ্রহন করিক কিন্তু অন্ধ অয়া নাগই।

ঢাকা  ০৪.০৩.২০১২

আমার সমাজর কবি লেখক এতার কপাল

১.
আমার সমাজর কবি লেখক এতার কপালর কিরৌ হবাহান। নিজর ভাত খেয়া, নিজর গাটর রূপা তিংকরিয়া, নিজে দ্বায়িত্ব নিয়া, প্রেসে দাবদা দাবদি করিয়া ছাপেইতারা ঔতা মানুয়ে লনা না মনেইতারা, লইতারা ঔতাও পাকরানি না মনেইতারা। মোবাইলে হারদিন ৫০/১০০ টাকা রিচার্জ করতে সমস্যা নেই, পুজার চান্দা ৫০০ টাকা দিতেউ সমস্যা নেই- লেইরিক আহান লইতে মিহুলগৎ থুক করের। জাতহারনরকা ঠারহানরকা রাতিদিন পরিশ্রম করিয়া সৃষ্টি করতার সাহিত্য উতার কোন মূল্যায়ন নার, বরং করুনার দৃষ্টিলো চেইতারা কুনো কুনোতায়। মানু আগো লেখকগো বুল্লে অগোর সমন্ধে সমাজর ধারনাহান সমসময় নেগেটিভ। বড় বাগরর লেখকগো, লিখালিখি করিয়া করেবেলতই! কবি সাহিত্যিক এতা বপতাই লেইরা হানতে সমাজর ডাঙর থাকে কবি সাহিত্যিকর মর্যাদা নেই, থাইলেউ ঔতার লগে ব্যক্তিস্বার্থ জড়িত থার।

২.
ইমারঠারর লেইরিক আহান ফেরি করাত গেলেগা মাততারা, “তোমার এতা পাকরানির সময় নেই”, “মানুর ঠার পাকরানি হিন”, “হুদ্দা ইমে কবিতা গল্প লিখরাই হানতে, কিসাদে উন্নতি করানি অকরবো অসাদে কথা লিখেই” ইত্যাদি। টিলিভিশনে নাটক সিরিয়াল খেলা চানার লম্বা সময় থার, আমার ঠারর লেইরিক আহান উল্টেয়া চানার সময় নেই। কুনো কুনো মানুরাং নিজর ঠারহান পাকরে নারানি এহান গর্বহান অসে, অথচ বাংলা হিন্দি ইংলিশ পাকরানি টটরানি জানানি এহানে স্ট্যাটাস বাড়ের। বারো সমাজ আহার উন্নতি এহানতে হাবিবারাদে অনা থক, অর্থনৈতিক উন্নতির লগে সামাজিক সাংস্কৃতিক উন্নতি অহানউ দরকারি। সমাজ সংস্কৃতি সভ্যতা হাবির মুলগতে হৌ ভাষা সাহিত্য।

৩.
ট্রানজিশন পিরিয়ড আহান পার কররাং সাৎ আমি। এহাত নানান ভাঙচুর বিনির্মাণ অয়া টিকলেতে টিকলাং নাইলে মিমুৎ অনা ঔহানই আমার ভবিতব্যহান।

ঢাকা  ০৫.১০.২০১২

চিন্তা বারো মননশীলতার জগত

১.
কিয়া হারনেই দিন যারগা মাহেই চিন্তা বারো মননশীলতার জগতেত্ত সমাজ এহান দুরেই অয়া যারগা। বিশেষ করিয়া নুয়া প্রজন্মরাং চিন্তার দৈন্যতা বিষয় এহান প্রকট অয়া দেহাদেসে। আমার তরুন প্রজন্মরাং সামাজিক, বৈশ্বিক, রাজনৈতিক চেতনার কোন চিনৎ আহান নাদেহিয়ার। ফেসবুকে মোর বন্ধু তালিকাৎ ৩০০+ সিংহ/সিনহা আছি। দুগো আ’গ ব্যতিক্রম বাদ দিলে কোনগরাংতো নাদেখলু চিন্তাশীল কথা আহান বা সমাজচেতনা বা রাষ্ট্রচেতনামুলক য়ারি আহান নিকুলতে। তানুর চিন্তা ইমে হিন্দী সিনেমা, খেলাধুলা বা প্রেমপীরিতির য়ারিপরির বিতরে সীমাবদ্ধ। অথচ তানুর সমবয়সী বাঙালি শৌ আগর সমাজচেতনা, সমকালীন রাজনীতি, দর্শন, অর্থনীতি, সাহিত্য, সাংস্কৃতিক জ্ঞান অহান দেখলে আচানক অনা লাগের।

২.
আকেইমাউ খালকরৌরি, কিয়া আমার সমাজর বিতরেউ এসাদে শৌ নাপেয়ারতা? আমার শৌ মেধায় কমসিহান নাগৈ, আমার অভিভাবক এতায় শৌশুমারারে বৈষয়িক বারো চাকুরিমুখী শিক্ষার পাথর আগো চাপাদিয়া তানুর মেধা মননর বিস্তৃতি, ক্রিয়েটিভিটি হাবি ধ্বংস করেইতারা সা’দ।

৩.
আশি/নব্বই দশকে বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি সমাজে নিবেদিতপ্রান তরুন সমাজকর্মী দাপাআহান নিকুলেসিলা। তানু জ্ঞানচর্চা করলা, লেইরিক লেইসু তামকরলা, চিন্তা চেতনা মননর জগতে বিচরন করলা। আজি প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রী লয়া আধুনিক প্রযুক্তির সুবিধা লয়াউ খামতলে পড়িয়া থাইলাঙ।

ঢাকা   ৩০.০৯.২০১২